আদিবাসী সমাজের পাশে মুখ্যমন্ত্রী, পুলিশকে বাড়তি দায়িত্ব

খবর রাজনীতি-সামাজিক

নিজস্ব প্রতিনিধি: সাধারণ মানুষকে নিরাপত্তা দেওয়া ছাড়াও পুলিশের সামাজিক দায়িত্বও আছে অনেক। তার সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরও একটি দায়িত্ব যুক্ত সকরে দিলেন। সম্প্রতি হওয়া মালদহ সফরে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, প্রত্যেক জেলায় আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া আদিবাসী পরিবারগুলির জন্য কমিউনিটি ম্যারেজের ব্যবস্থা করবে পুলিশ।

বৃস্পতিবার বেলা ১২ টা নাগাদ মালদহের গাজোলে গণবিবাহের অনুষ্ঠানে যোগ দেন মুখ্যমন্ত্রী। ৩০০ যুগলকে শুভেচ্ছা জানান তিনি। আদিবাসী নৃত্যের তালে অংশ নেন মুখ্যমন্ত্রী। পুরো ব্যবস্থা খতিয়ে দেখেন মুখ্যমন্ত্রী। কারও কারও টোপরও নিজের হাতে ঠিক করে দিতে দেখা যায় মুখ্যমন্ত্রীকে। আদিবাদী যুগলদের নিজের হাতে উপহার তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী।

মুখ্যমন্ত্রী ওইদিন জানান, শুধু মালদহেই নয়, এবার অন্য জেলাতেও গণবিহারের আয়োজন করা হবে। উত্তরবঙ্গের চা-বলয়ে আদিবাসী শ্রমিকদের নিয়ে গণবিবাহের আসর বসানো হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। যা হবে এইমাসের দ্বিতীয় কিংবা তৃতীয় সপ্তাহে।

 

জানা গিয়েছে, এইমাসেই আলিপুরদুয়ারে গণবিবাহের আসর বসবে। উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুরে আসর বসবে পরের মাসে। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, প্রত্যোক জেলাতেই আদিবাসী সমাজের জন্য কমিউনিটি ম্যারেজ আয়োজনের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে পুলিশকে। তিনি বলেন যদি প্রয়োজন পড়ে তো পশ্চিমবঙ্গ সরকার বছরে ১০ হাজার মহিলার বিয়ের আয়োজন করতে পারে।

মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, এই লধরনের বিয়েতে অংশ নেওয়া মহিলাদের রূপশ্রী প্রকপ্লে সরকারি সাহায্য করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *