বাতিল কলেজ শিক্ষকদের বাড়তি ছুটি!

শিক্ষা-কর্ম

নিউজ ডেস্ক: এতদিন সপ্তাহে দু’দিন ছুটি পেতেন কলেজ শিক্ষকরা। এবার সপ্তাহে দু’দিনের জায়গায় শুধুমাত্র রবিবার ছুটি রাখা হতে পারে। এমনই ইঙ্গিত দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। বামফ্রন্ট আমলে রাজ্যের কলেজ শিক্ষকদের প্রস্তুতি ছুটি (প্রিপারেটরি লিভ) নামে সপ্তাহে একদিন অতিরিক্ত ‘অফ ডে’ দেওয়া শুরু হয়। কলেজ ক্যাম্পাসের বাইরে বাড়তি পড়াশোনা, গবেষণা কিংবা ল্যাবরেটরিতে চর্চার জন্য এই অতিরিক্ত ছুটি দেওয়া হয়। যা ‘পি লিভ’ নামে পরিচিত। দীর্ঘদিন ধরে অভিযোগ উঠছেন, ‘পি লিভ’ নিয়ে শিক্ষকরা সঠিক কাজে লাগাচ্ছেন না। নিজেদের ব্যক্তিগত কাজেই ব্যবহৃত হচ্ছে এই অতিরিক্ত ছুটি।

আগে স্নাতকস্তরে বছরে একটি করে পরীক্ষা হত। এখন সিবিসিএস চালু হয়েছে। সেমেস্টার পদ্ধতিতে এখন বছরে দু’টি করে পরীক্ষা নেওয়া হয়। ফলে শিক্ষণ দিবস কমে গিয়েছে। যথাসময়ে সিলেবাস শেষ হচ্ছে না। এহেন পরিস্থিতিতে কলেজে শিক্ষকদের কর্মদিবস বাড়াতেই হবে।

এই নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, “আমি উত্তরবঙ্গে গিয়ে উপাচার্য এবং কলেজ অধ্যক্ষদের নিয়ে বৈঠক করলাম। কলেজ শিক্ষকরা অনেকে দৈনিক মাত্র ৩-৪ ঘণ্টা করে কলেজে সময় দিচ্ছেন বলে অভিযোগ আসছে। আরও বেশি সময় দিতে হবে। ছাত্রছাত্রীদের আরও উৎকর্ষের লক্ষ্যে আমাদের একসঙ্গে কাজ করতে হবে।” এরপর শিক্ষকদের বাড়তি ছুটি নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, “পি লিভ-সহ এদিন বিভিন্ন ইস্যুতে কথা হয়েছে। আমি সব শুনেছি। আমরা কোনও সিদ্ধান্ত নিইনি। যাঁর যতটা সময় পড়ানোর কথা তত সময় পড়ালে পড়ুয়ারা উপকৃত হবে।”

যদিও এই অতিরিক্ত ছুটি বাতিল বিষয়ে এখনও নির্দেশিকা জারি করেনি রাজ্য সরকার। তবে, বেশ কিছুদিন ধরেই কলেজ শিক্ষকদের ‘পি লিভ’ বাতিল নিয়ে চর্চা করছে উচ্চশিক্ষা দপ্তর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *