তৈরি হল না মিহিদানা, রসগোল্লা, মিষ্টি প্রেমিদের জন্য দুঃসংবাদ

লাইফস্টাইল

মিষ্টি প্রিয় বাঙালি। কিন্তু লকডাউনের জেরে সেই মিষ্টি ধরা ছোয়ার বাইরে চলে গিয়েছে সাধারণ মানুষের। কিন্তু সেই সমস্যার সমাধান করে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সকাল থেকে বিকেল চারটে পর্যন্ত খোলা থাকবে মিষ্টির দোকান।

কিন্তু বুধবারও বর্ধমানে তৈরি হল না সীতাভোগ মিহিদানা। শুধু মিহিদানা নয়, রাজ্যের একাধিক জায়গায় তৈরি হল না রসগোল্লাও। শুধু তাই নয়, এদিনও বন্ধ থাকল একাধিক বড় মিষ্টির দোকান।

তবে বিভিন্ন জায়গায় ছোট মিষ্টির দোকানগুলি খুলেছে। তারা অনেকেই পান্তুয়া, ছানার জিলিপি, দানাদার তৈরি করছেন। কারণ, এইসব ভাজা এবং শুকনো  মিষ্টি টেকে বেশিদিন। তবে মিষ্টি ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, সেভাবে ক্রেতার দেখা মেলেনি।

অন্যদিকে, সীতাভোগ, মিহিদানার জন্য বিখ্যাত দোকানগুলি এদিনও ছিল সাটার নামানো। সাবধানতার পাশাপাশি লাভ ক্ষতির হিসেব চলছে। তার জেরেই বন্ধ বড় মিষ্টির দোকানগুলি। তবে ছোট দোকানগুলির মালিকরা বলছেন, আমরা নিজেরাই মিষ্টি তৈরি করি। বড়জোর কারও কারও এক দুজন কর্মী কারিগর আছেন। আমরা প্রয়োজন মতো মিষ্টি তৈরি করছি। তবে চড়া রোদ মাথায় নিয়ে ভর দুপুরে মিষ্টি কিনতে আসতে চাইছেন না অনেকেই। সকালে ও বিকেলে দোকান খোলার অনুমতি মিললে সুবিধা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *