শিক্ষায় মুসলিমদের ৫% সংরক্ষণ, আইন রাজ্য সরকারের

খবর শিক্ষা-কর্ম

নিজস্ব প্রতিনিধি: মুসলিমদের রাজ্যের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৫% সংরক্ষণ দিতে বিল আনছে মহারাষ্ট্রের জোট সরকার। শুক্রবার ঘোষণা করেন রাজ্যের সংখ্যালঘু উন্নয়ন মন্ত্রী নবাব মালিক। বিধানসভার চলতি বাজেট অধিবেশনেই আনা হবে সেই বিল। সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন ওই মন্ত্রী। মহারাষ্ট্রে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের নেতৃত্বে মহা বিকাশ অঘোরীর জোট সরকার গত তিনমাস ক্ষমতায়। শেষ ৯০দিনে তিন শরিকের মধ্যে বিভিন্ন ইস্যুতে দ্বন্দ্ব বাঁধলেও, এই সরকার ৫ বছর চলবে। এমনটা জানিয়েছে তিন পক্ষই। এদিকে এনসিপি নেতা তথা মন্ত্রী নবাব মালিক বলেছেন, শিক্ষার পাশাপাশি সরকারি চাকরিতে মুসলিম সংরক্ষণ নিশ্চিত করতে তারা আইনি পরামর্শ নিচ্ছেন। এর আগে আদালতের নির্দেশ থাকলেও পূর্বতন দেবেন্দ্র ফড়নবীশ সরকার এই সংরক্ষণ লাগু করেনি।

শুক্রবার মন্ত্রী নবাব মালিক বলেছেন, আমরা চেষ্টা করছি এই অধিবেশনের শেষে মুসলিমদের জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সংরক্ষণ চালু করতে। ৫% সংরক্ষণ দিতে আমরা বিল আনছি। ইতিমধ্যে শিক্ষা ও সরকারি চাকরিতে সংরক্ষণের জন্য ৫০% কোটা বেঁধে দিয়েছে শীর্ষ আদালত। সেই কোটা মেনেই এই ৫% শতাংশ বরাদ্দ হবে বলে সূত্রের খবর। মারাঠাদের জন্য সে রাজ্যে সরকারি চাকরি ও শিক্ষায় সংরক্ষণ প্রথা লাগু করা হয়েছিল। গত বছর জুনে মহারাষ্ট্রের বিজেপি-শিব সেনা জোট সরকারকে মারাঠাদের জন্য সংরক্ষণ চালু করতে অনুমতি দিয়েছিল। কিন্তু সরকারি তরফে ১৬% সংরক্ষণের দাবি নিয়ে আবেদন করা হয়েছিল। তবে সেটা ১৩%-তে সিলমহর বসিয়েছিল আদালত। মারাঠা সংগঠনগুলোর দাবি ছিল, শীর্ষ আদালতের নির্দেশ মেনে ৫০% করা হোক সংরক্ষণ বরাদ্দ। তবে এই ৫০% বরাদ্দ পূরণে রাজ্যের মহা-অঘোরী সরকারের পরিকল্পনা কী? তা নিয়ে মুখ খোলেনি সরাকারি কোনও সূত্র।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *