লকডাউনের জেরে চাকরি হারাবেন ৪০ কোটি, সরকারি রিপোর্টে বাড়ছে উদ্বেগ

ব্যবসা

করোনার থাবা যত জাঁকিয়ে বসছে ভারতে, ততই দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা তলানিতে গিয়ে ঠেকার উপক্রম হয়েছে। আর এর জেরে সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে সাধারণ মানুষ থেকে খেটে খাওয়া দিনমজুররা। পাশাপাশি সাধারণ মধ্যবিত্ত মানুষেরও নাভিশ্বাস উঠেছে। এই পরিস্থিতিতে, খুব শীঘ্রই দেশে বহু মানুষ চাকরি হারাতে চলেছেন বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে একাধিক সংস্থা। আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থার তরফেও স্পষ্ট করে দিয়েছে দেশে ৪০ কোটি মানুষ বেকার হতে চলেছে। শুধু তাই নয়, অসংগতি শ্রমিকরা বেশি খতিগ্রস্ত হবে।

ইন্টারন্যাশনাল লেবার অর্গানাইজেশন সম্প্রতি এক রিপোর্ট পেশ করে জানাচ্ছে যে করোনার জেরে চলতে থাকা লকডাউনের জেরে ক্রমেই ভারতে দারিদ্র সীমা ছুঁয়ে ফেলবে ৪০ কোটি মানুষ। এই সংখ্যায় মানুষ যদি গরিব হয়ে যায় তাহলে অর্থনীতি ধসে পড়বে অচিড়েই। আইএলও আরও জানিয়েছে যে বিশ্বজুড়ে গরিব হয়ে পড়তে পারে ২৭০ কোটি মানুষেরও বেশি।

সম্প্রতি সিআইআই-এর দ্বারা এক সমীক্ষা করা হয়। তাতে সিআইআই-এর সঙ্গে যুক্ত দেশের সমস্ত বড় বড় সংস্থার সিইও-দের প্রশ্ন করে জানতে চাওয়া হয় যে লকডাউন পরবর্তী সময়ে চাকরি থাকা নিয়ে তাঁদের মতামত। সেই প্রশ্নের জবাবেই ৫২ শতাংশ সিইও উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন যে লকডাউনের পর নিশ্চিত ভাবে অনেক মানুষ চাকরি হারাবে।
সদ্য প্রকাশিত এক রিপোর্টে সেন্টার ফর মনিটরিং ইকনমি নামে মুম্বইয়ের এক সংস্থা জানিয়েছে, দেশে কর্মরতদের সংখ্যা কমেছে। সেই সঙ্গে কমেছে নতুন নিয়োগের সংখ্যা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *