দেশে পরকীয়ায় এগিয়ে বাঙালি মহিলারা

খবর লাইফস্টাইল

নিজস্ব প্রতিনিধি: পরকীয়া বহু প্রাচীন৷ সেকালেও ছিল৷ এ কালেও আছে৷ তবে স্মার্টফোনের রমরমায় এখন পরকীয়া দেদার চললেও, তা লালিত হয় ফোনেই৷ একগুচ্ছ ডেটিং অ্যাপ-এর জেরে পরকীয়ার রমরমা বেড়েছে৷ ভারতেপুরুষ না মহিলা, কারা বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কে বেশি জড়িয়ে পড়ছে? ভারতের প্রথম বিবাহবহির্ভূত ডেটিং অ্যাপ-এর সমীক্ষায় উঠে এল চাঞ্চল্য কর তথ্য৷

সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, পুরুষরা নন, পরকীয়া সম্পর্কে ভারতে এগিয়ে মহিলারাই৷ ভারতের ৫৫ শতাংশ বিবাহিত পুরুষ ও মহিলারা জীবনে একবার অন্তত পরকীয়া সম্পর্কে লিপ্ত হয়েছে৷ ভারতের প্রথম বিবাহবহির্ভূ ডেটিং অ্যাপ Gleeden-এর সার্ভেতে এই তথ্য উঠে এসেছে৷

সমীক্ষা বলছে, ৪৮ শতাংশ ভারতীয় বিশ্বাস করেন, দুজনকে একসঙ্গে ভালোবাসা সম্ভব৷ ৪৬ শতাংশ ভারতীয় মনে করেন, একটি সম্পর্কের মধ্যে থেকেও আরেকটি সম্পর্কে জড়িয়ে পড়াই যায়৷কিন্তু পরকীয়ায় ধরা পড়লে সঙ্গী বা সঙ্গিনী কি ক্ষমা করছেন? ৭ শতাংশ ব্যক্তির বক্তব্য, পার্টনারের পরকীয়া জেনে ফেললেও, তাঁরা একবারেই ক্ষমা করে দেবেন৷ ৪০ শতাংশের বক্তব্য, যদি সব বোঝাপোড়া ঠিক থাকে, তা হলে আলোচনার মাধ্যমে ক্ষমা করাই যায়৷ তবে শর্ত হল, তিনিও যদি কোনও দিন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন, ক্ষমা করে দিতে হবে৷ এরকম ধারণা ৬৯ শতাংশের৷

দিল্লি, মুম্বই, কলকাতা, বেঙ্গালুরু, চেন্নাই, হায়দরাবাদ, পুনে, আহমেদাবাদ, কলকাতা মিলিয়ে ১ হাজার ৫২৫ জন বিবাহিত ভারতীয় দম্পতির মধ্যে সমীক্ষাটি চালানো হয়৷ ২৫ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে বয়সের৷২০১৮ সালে সুপ্রিম কোর্টের পরকীয়া রায়ের পর থেকে Gleeden-এর বাজার তুঙ্গে৷ সমীক্ষায় জানা গিয়েছে, ভারতে ৪৯ শতাংশ বিবাহিত দম্পতি স্বীকার করেছেন, পার্টনার ছাড়াও অন্যের সঙ্গে তাঁদের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক হয়েছে৷ ১০ জনের মধ্যে ৫ জনই ক্যাজুয়াল সেক্স বা ওয়ান স্ট্যান্ডে গিয়েছেন৷ দেখা গিয়েছে, পরকীয়া সম্পর্কে ভারতে সবচেয়ে এগিয়ে মহিলারাই৷ সার্ভে বলছে, ৪১ শতাংশ মহিলা স্বীকার করেছেন, স্বামী ছাড়া অন্য একজনের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে তাঁরা লিপ্ত হন নিয়মিত৷ ৫৩ শতাংশ মহিলা স্বীকার করেছেন, তাঁদের স্বামী ছাড়াও বাইরে সম্পর্ক রয়েছে৷ পুরুষদের ক্ষেত্রে সংখ্যাটা ৪৩ শতাংশ৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *