Wednesday , 26 , Jan-2022

inner-page-banner

বিনিয়োগকারীর সঙ্গে চুক্তি সই না হওয়ায় অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে ইস্টবেঙ্গলের ভবিষ্যৎ। ক্লাবের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, চূড়ান্ত চুক্তিপত্রে তারা সই করবে না। এর প্রতিক্রিয়ায় বুধবার দুপুরে বিক্ষোভ আছড়ে পড়ে লাল-হলুদ তাঁবুতে। দুই গোষ্ঠীর সমর্থকরা একে অপরের বিরুদ্ধে মারপিটে জড়িয়ে পড়েন।
এসব দেখেই ব্যথিত কামারহাটির বিধায়ক মদন মিত্র! বুধবার ২১ জুলাইয়ের সভার পর ফেসবুক লাইভে এসে কার্যত ইস্টবেঙ্গলকে ভীখারির সঙ্গে তুলনা চরলেন মদন মিত্র। তিনি জানান, ইস্টবেঙ্গল ক্লাবকে তিনি দরকার হলে বিধায়ক হিসেবে নিজের এক মাসের বেতন দিয়ে দেবেন। প্রসঙ্গত, একজন বিধায়ক মাসে ৮২ হাজার টাকা বেতন পান। কিন্তু এই দানের প্রসঙ্গ আচমকা তুললেন কেন মদন মিত্র? আদেও কি ইস্টবেঙ্গল সমর্থকরা টাকার জন্য আগের দিন ক্লাবের সামনে জড়ো হয়েছিল? নাকি বিধায়ক মনে করেন তাঁর এক মাসের বেতনে ক্লাবের যাবতীয় খরচ চলে যাবে? আসলে ইস্টবেঙ্গলের আবেগে আঘাত করলেন মদন মিত্র।

You can share this post!

কালীঘাটে লকেট, অভিষেকের সঙ্গে বৈঠক

চীনে মসজিদ ভেঙে তৈরি হচ্ছে পাবলিক টয়লেট, বার

author

Sunday Times Kolkata

By Admin

1 Comments

Leave Comments