Wednesday , 06 , Jul-2022

Top Stories
  1. মা সারদাকে অপমান করেছে তৃণমূল বিধায়ক নির্মল, চরম ক্ষুব্ধ বেলুড় মঠ
  2. সাত বার কোপ মেরে মাথা কাটা হয়েছে হিন্দু দর্জি কানাইয়ার
  3. সনিয়া গান্ধীর আপ্তসহায়কের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ
  4. ইস্টবেঙ্গল কর্মকর্তাদের ঢিলেমিতে চরম ক্ষুব্ধ ইমামি কর্তা
  5. টাকার অভাবে এবার পাঠ্যবই ছাপানো বন্ধ করল পাকিস্তান
  6. 30 হাজার প্রাথমিক শিক্ষকের চাকরি প্রশ্নের মুখে, ডিভিশন বেঞ্চেও ধাক্কা খেল পর্ষদ
  7. কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্য নিয়োগ বেআইনি, মামলা হাইকোর্টে
  8. পশ্চিমবঙ্গে 70 লক্ষ ভুয়ো রেশন কার্ড, চাল গম বন্ধ করল কেন্দ্র সরকার
  9. দক্ষিণবঙ্গের অর্থনৈতিক উন্নয়নের পথ দেখাবে পদ্মা সেতু
  10. 700 গাছের চারা বিতরণ করল টরন্টো ক্যালকাটা ফাউন্ডেশন
inner-page-banner

বেনাপোল পেট্রাপোল সীমান্তে যাত্রী দুর্ভোগ চরমে 
অনুব্রত সাহা মিঠুন, বাংলাদেশ ব্যুরো:  যশোর বেনাপোল বন্দর ইমিগ্রেশনে ও বনগাঁর পেট্রাপোল ইমিগ্রেশনে যাত্রী দুর্ভোগ দিন দিন বেড়েয় চলেছে। ৩ থেকে ৬  ঘণ্টা সময় লাগছে এক এক জন যাত্রীর মাত্র ৪০০ মিটার দূরত্বের দুই দেশের ইমিগ্রেশন পার করতে। বেনাপোল থেকে পেট্রাপোল ইমিগ্রেশনে যাত্রীদের ভোগান্তি অনেকটায় বেশি। এ পথে রোগীদের ও বয়স্কদের  দুর্ভোগ আরো চরমে উঠেছে। ঢাকা বনানীর ইমতিয়াজ রহমান চৌধুরী চিকিৎসা ভিসা নিয়ে বেনাপোল বন্দর দিয়ে চরম ভোগান্তির শিকার হয়েছেন বলে সানডে টাইমস কোলকাতাকে জানান, তিনি বলেন ৪৫ মিনিট বেনাপোল ইমিগ্রেশনে দাড়িয়ে ছিলাম। ৪ ঘণ্টা নোম্যান্সল্যান্ডে। ১ ঘণ্টা মত পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন। আমি অসুস্থ রোগী। বন্ধু দুই দেশের ভেতর এতো বেশি ভোগান্তি আশা করা যায়না।
কুমিল্লার বিশ্বজিৎ দেবনাথ জানান, ৪-৫ ঘণ্টা সময় নোম্যান্সল্যান্ডে দাড়িয়ে ছিলাম যেটা সত্যিই হয়রানি। ভারত ও বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় পর্যায় থেকে বিষয়টি দেখা প্রয়োজন। সরজমিনে পেট্রপোল ইমিগ্রেশনে গিয়ে দেখা যায় ১০ টি কাউন্টারের মাত্র ৩, ৪ দিয়ে সার্ভিস চলছে পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন। বাকি কাউন্টারের কর্মকর্তা নেই। নোম্যান্সল্যান্ডে সকাল থেকে বিকাল দাঁড়িয়ে শত শত যাত্রী। সময় সময় এ সংখ্যা হাজারও পার করে। এদিকে দেশের অন্যতম বৃহৎ স্থল বন্দর বলে এপথে যাত্রী সংখ্যাও বেশি। তাছাড়া এখান থেকে পশ্চিমবঙ্গের প্রধান শহর কোলকাতার দূরত্ব মাত্র ৮৩ কিলোমিটার। তাই এই পথ যাত্রীদের অন্যতম পছন্দের। কিন্তু ভোগান্তির জন্য অনেকেই এই পথ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন। 

এ বিষয়ে বেনাপোল বন্দরের উপ - পরিচালক মামুন কবীর তরফদার সানডে টাইমস কোলকাতাকে জানান, বাংলাদেশ ভারত উভয় দেশের বন্দর কর্তৃপক্ষের ভেতর এনিয়ে আলোচনা হয়েছে। ভারত থেকে দ্রুত বিষয়টি সমাধান করবে বলে জানিয়েছেন। 

সেন্টার ফর বাংলাদেশ ভারত ফ্রেন্ডশিপের যশোর জেলা সভাপতি সৈয়দ মুনির হোসেন টগর বলেন, ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতি অনুরোধ দ্রুত ইমিগ্রেশনে লোক বাড়ানো হোক। যাত্রীদের সুযোগ সুবিধা বাড়ানো হোক এবং দুই বন্ধু দেশের ভেতর পোর্ট এন্ট্রি ভিসা চালু সহ যাতায়াত সহজ করা হোক।

বেনাপোল ইমিগ্রেশনের ওসি মো: রাজু জানান, করোনার পর যাত্রীদের চাপ বেড়েছে। যাত্রী সেবা দিতে আমরা বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছি, ডেস্কের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। অসুস্থ রোগীদের জন্য ভিন্ন ডেস্ক চালু করা হয়েছে। পেট্রাপোল ইমিগ্রেশনে লম্বা লাইনের বিষয়ে তিনি বলেন, এটি ভারতের বিষয়, তারা এটি ভালো বলতে পারবেন।

You can share this post!

রাম নামে মরিয়া রাজ্যের মন্ত্রী, শাহ আসার আগে ঘাসফুল শিবিরে কি ফের ভাঙন

গোয়ায় গিয়ে মমতাকে পাত্তাই দিলেন না রাহুল, অস্বস্তিতে তৃণমূল

author

Sunday Times Kolkata

By Admin

2 Comments

Leave Comments