Wednesday , 21 , Apr-2021

Top Stories
  1. কবি শঙ্খ ঘোষের প্রয়াণে শোকস্তব্ধ বাংলা
  2. লকডাউন করবেন না, রাজ্য সরকারকে কড়া বার্তা মোদীর
  3. বাংলাদেশ থেকে রেমডেসিভির আনতে মোদীর কাছে অনুমতি চাইলো মুখ্যমন্ত্রী
  4. একের পর এক সংক্রমিত কর্মীরা, বন্ধ হচ্ছে লোকাল ট্রেন
  5. শীতলকুচির ডেড বডিগুলো নিয়ে র‍্যালি করব, এসপি, আইসি, পুলিশকে ফাঁসাতে হবে, ফের মমতার কলরেকর্ড ফাঁস
  6. তৃণমূল পেতে পারে ১৮৮ আসন, নতুন সমীক্ষায় স্পষ্ট জনমত
  7. ভোটে প্রচার করতে পারবেন না মুখ্যমন্ত্রী, ব্যান করল নির্বাচন কমিশন
  8. শীতলকুচিতে মাদ্রাসা বুথে বেধরক মারা হয় কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের, মুখ্যমন্ত্রীর উস্কানিতেই পরিকল্পিত হামলা, প্রকাশ্যে এল ছবি
  9. মমতার উস্কানিতেই মৃত্যু হচ্ছে, ঝড়ছে রক্ত, অবিলম্বে বয়কট করুন মুখ্যমন্ত্রীকে
  10. মাদ্রাসা বুথে গুলি চালাল কেন্দ্রীয় বাহিনী, মৃত চার
inner-page-banner

সুরজিৎ আঁকুড়ে:- পৌষ উৎসব পালিত হলেও এ বার পৌষমেলা হবে না শান্তিনিকেতনে। সোমবার বিশ্বভারতীর কোর্ট সদস্যরা অনলাইনে বৈঠক করেন। ৯০ জন সদস্যের মধ্যে ৭০ জনই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। বিশ্বভারতীর নানা বিষয়ে নিয়ে আলোচনার পাশাপাশি সেখানে পৌষমেলা নিয়েও কথা হয়। প্রশ্ন ওঠে, করোনা পরিস্থিতিতে এ বার পৌষমেলা কি করে সম্ভব? 
যদিও অধিকাংশ সদস্যরা মেলা বন্ধের পক্ষেই। পরে সিদ্ধান্ত হয়, করোনা পরিস্থিতিতে এ বারের মতো বন্ধ পৌষমেলা। তবে, অল্প সংখ্যক মানুষকে নিয়ে সমস্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিশ্বভারতীতেই পালিত হবে পৌষ উৎসব। 
বিশ্বভারতীর বাংলা বিভাগের অধ্যাপক মানবেন্দ্র মুখোপাধ্যায় বলেন, “১৮৪৩-এর ৭ পৌষ ব্রাহ্মধর্মে দীক্ষা গ্রহণ করেন দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুর। ১৮৪৫ সালে তাঁর ইচ্ছানুসারে ব্রাহ্মদের মধ্যে সৌহার্দ্য বৃদ্ধির জন্য কলকাতার গোরিটি বাগানে একটি মেলার আয়োজন হয়। তবে তা ধারাবাহিক ভাবে হয়নি।’’ মানবেন্দ্র আরও জানান, ১৮৮৮ সালে দেবেন্দ্রনাথ একটি ট্রাস্ট-ডিড তৈরি করে লেখেন, ট্রাস্টিরা যেন পৌষমেলা শান্তিনিকেতনে করার চেষ্টা করেন। ১৮৯১ সালের ৭ পৌষ স্থাপিত হয় উপাসনা মন্দির। সে দিনই দেবেন্দ্রনাথের দীক্ষা দিবসের বাৎসরিক উপলক্ষে মন্দিরে উপাসনার মধ্য দিয়ে পৌষ উৎসব পালন শুরু হয়। এর পর ১৮৯৪ সাল থেকে ধারাবাহিক ভাবে আয়োজিত হয়ে আসছে পৌষমেলা।
এর পাশাপাশি মানবেন্দ্র বাবু আরও জানান যে, ১২৬ বছরের ইতিহাসে মোট দু’বার বন্ধ থেকেছে পৌষমেলা। মানবেন্দ্রর কথায়, ‘‘১৯৪৩ সালে দেবেন্দ্রনাথের দীক্ষাগ্রহণের শতবর্ষে মন্বন্তরের কারণে এবং ১৯৪৬-এ সাম্প্রদায়িক অশান্তির কারণে মেলা আয়োজন সম্ভব হয়নি। তবে এই দুই বছরও পৌষ উৎসব পালনে কোনও ছেদ পড়েনি।’’ এ বারও মেলা বন্ধ হলেও পৌষ উৎসব পালিত হবে।

You can share this post!

শনিবার বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন শুভেন্দু

অভিষেকের স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে সন্তুষ্ট নয় সিবিআই, রুজিরাকে হেফাজতে নিতে পারে সিবিআই

author

Sunday Times Kolkata

By Admin

0 Comments

Leave Comments