হাসপাতালে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনায় মৃত্যু বাবা-ছেলের, বাইকের সঙ্গে ধাক্কা অ্যাম্বুল্যান্সের

রাজনীতি-সামাজিক

দীপক মুখার্জী: বাবার আর চিকিৎসা হলোনা। ছেলে ও বাবা দুজনই সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন। রবিবার সকালে বোলপুরের জনৈক জাকির শেখ বাবার কিডনির চিকিৎসা করানোর জন্য বইকে হাসপাতালে যাচ্ছিলেন, পথিমধ্যে সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হযেছে বাবা-ছেলে দুজনেরই। জানাগেছে, বোলপুর থেকে নানুর যাওয়ার মূল রাস্তায় জাকিরের বাইকের সাথেু উল্টোদিক থেকে আসা একটি অ্যাম্বুল্যান্সের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। ঘটনাস্থলেই মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটে বাবা এবং ছেলের।

এ ব্যাপারে বিরভূম পুলিশ জানিয়েছে, বাবা শেখ লতিফকে নিয়ে বোলপুর মহকুমা হাসপাতালে যাচ্ছিলেন ছেলে জাকির শেখ। এদিন বাবা শেখ লতিফের কিডনীর ডায়ালিসিস হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু হাসপাতালে যাওয়ার সময় বোলপুর থানার কাছে লায়েকবাজার এলাকায় একটি ফাঁকা অ্যাম্বুল্যান্স এসে বেপরোয়া ভাবে ধাক্কা মারে জাকিরের বাইকে। ঘটনাস্থলেই মারা যান অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী শেখ লতিফ এবং তাঁর ছেলে জাকির শেখ। জানা গেছে, তাঁরা শান্তিনিকেতনের পশ্চিম গুরুপল্লীর বাসিন্দা।
দুর্ঘটনা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় বোলপুর থানার পুলিশ। তারা মৃতদেহ দুটি উদ্ধার করা ময়নাতদন্তে পাঠায়। নিহতদের পরিবারের সঙ্গেও যোগাযোগ করেছে পুলিশ। সাতসকালে পথ দুর্ঘটনায় বাবা-ছেলের মৃত্যুর খবরে শোকের ছায়া নেমে আসে গোটা এলাকায়। পুলিশ জানিয়েছে ঘাতক অ্যাম্বুল্যান্সের চালক পলাতক। তার খোঁজে তল্লাশি চলছে।

ঘাতক অ্যাম্বুল্যান্সের চালকের কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছে মৃতের পরিবার এবং এলাকাবাসী।

1 thought on “হাসপাতালে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনায় মৃত্যু বাবা-ছেলের, বাইকের সঙ্গে ধাক্কা অ্যাম্বুল্যান্সের

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *