সীমান্তে বাংলাদেশি মৃত্যুর ঘটনায় বিএসএফের ব্যাখ্যা

খবর বাংলাদেশ

ওমর আলী, ঢাকা ব্যুরো: বাংলাদেশের ঠাকুরগাঁও জেলার চোষপাড়া সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে জয়নাল আবেদিন (৩৫) নামে এক ব্যাক্তি নিহতের ঘটনার ব্যাখ্যা দিয়েছে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষাকারী বাহিনী। ২ এপ্রিল ভোরে চোষপাড়া সীমান্তে ঘটনাটি ঘটে বলে খবর আসার পর শুক্রবার (৩ এপ্রিল) এক বার্তায় নিজেদের অবস্থান তুলে ধরে তারা।

বিএসএফের বার্তায় বলা হয়, ঘটনাটি ঘটে বুধবার (১ এপ্রিল) রাত ৮টা ৫০ মিনিটের দিকে বিএসএফের বিওপি চকলাগড় এলাকার সীমান্তে। ওই সময় মাদক পাচারকারী চক্র ভারতীয় অংশ থেকে বাংলাদেশে ফেনসিডিলের একটি চালান ঢোকাচ্ছিল। সেসময় সেখানে টহলরত বিএসএফের একটি দল ওই পাচারকারী চক্রের হামলার শিকার হয়। তখন পাচারকারীদের সতর্ক করা হলেও তারা সীমান্তের বেড়া ছিঁড়ে ফেলে।

‘কোনো উপায় না দেখে এবং আত্মরক্ষায় টহল দল ওই পাচারকারীদের গুলি করে। তখন পাচারকারীরা বাংলাদেশের দিকে পালিয়ে যায়, এসময় একজনের গায়ে গুলি লাগলে সে আহতাবস্থায় পড়ে থাকে। আহত ওই ব্যক্তি সেখানেই মারা যায়। পরে তার পরিচয় জানা যায়, সে বাংলাদেশের ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার সমিরনগরের বাসিন্দা।’

ঘটনাটি ভারতীয় ভূখণ্ডের মধ্যেই ঘটেছে উল্লেখ করে বিএসএফের পক্ষ থেকে আরও দাবি করা হয়, গত বছরের অক্টোবরে ঢাকায় বাংলাদেশ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর ও ভারতের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরোর মহাপরিচালক পর্যায়ের সভায় সিদ্ধান্ত হয় যে, সীমান্তে ফেনসিডিলসহ অন্যান্য অবৈধ পণ্য পাচারের ঘটনা নিয়ন্ত্রণে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *