“রামের সাম্রাজ্য নেপাল” প্রমাণ করতে মাঠে নামলো নেপালের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ

খবর

অস্মিতা কুন্ডু- সম্প্রতি নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি দাবি করেন রামায়ণের রামের বাসস্থান অর্থাৎ অযোধ্যা নেপালে অবস্থিত। এই মন্তব্যের পর ভারত ও নেপালের মধ্যে দ্বন্দ্ব তৈরি হয়। ওলির এই দাবিকে সঠিক প্রমাণ করতে তিনি নেপালের প্রত্নতত্ত্ববিদদের ইতিহাস খননের নির্দেশ দেন।

নেপালে প্রত্নতত্ত্ব বিভাগে কর্মরত দামোদর গৌতম জানান, প্রধানমন্ত্রীর এই নির্দেশের পর দেশের সমস্ত পুরোতাত্ত্বিক বিষয় এবং রামের জন্মভূমি ও জন্ম সংক্রান্ত সমস্ত খুঁটিনাটি বিষয় খতিয়ে দেখবেন প্রত্নতত্ত্ববিদরা। তিনি এও জানান শিক্ষক, গবেষক, সংস্কৃতি বিশেষজ্ঞ ও ইতিহাসবিদদের নিয়ে প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ একটি সভা গঠন করবেন। এবং এই বিষয়ে সবার মতামত চাইবেন। প্রসঙ্গত এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী ওলি দাবি করেন নেপালের জনকপুর নামক জায়গাটি আসলে রাজা জনকের সাম্রাজ্য, যার পূর্বনাম ছিল মিথিলা। এবং সেই সূত্র ধরেই, নেপালের বীরগঞ্জের থোরি নামক একটি এলাকাতে প্রত্নতত্ত্ববিদেরা প্রাথমিকভাবে খননকার্য শুরু করবেন রামের সাম্রাজ্য খোঁজার উদ্দেশ্যে। তারপরে আরো বেশ কিছু জায়গাতে খননের কাজ চালানোর কথা ও জানানো হয়েছে।
এই বিষয়ে নেপালের বিদেশ মন্ত্রী জানান, রামের জন্ম থেকে শুরু করে তার রাজ্য বিস্তার সমস্তটাই ইতিহাস ভিত্তিক। সেক্ষত্রে সঠিকভাবে অনুসন্ধান না করে কোনো কিছুই বলা সম্ভব নয়। তবে বিষয়টির ওপর সঠিক অনুসন্ধান বদলে দিতে পারে ইতিহাস।