চাকরি হারালেন বৈশাখী

রাজনীতি-সামাজিক

দু’দুবার ইস্তফা দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করার পর অবশেষে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের ইস্তফা গৃহীত হয়েছে বলে খবর৷ ফলে, মিল্লি আল আমিন কলেজের অধ্যক্ষ ও অধ্যাপক পদ থাকছে না বৈশাখীদেবী৷ বৈশাখীর পদে কলেজের নতুন দায়িত্ব পেতে চলেছেন পারভিন কাউর৷

জানা গিয়েছে, গত ৫ ডিসেম্বর চাকরি থেকে অব্যাহতি চেয়ে শিক্ষামন্ত্রীকে ইমেলে ইস্তফাপত্র পাঠান বৈশাখীদেবী৷ এরপর শিক্ষামন্ত্রীর ফোন পেয়ে আশ্বস্ত হন৷ পুরানো অবস্থান থেকে ফিরে আসার কথাও জানান তিনি৷ কিন্তু, ইস্তফা দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশের পর মঙ্গলবার বিকাশ ভবনের তরফে তা গ্রহণ করা হয়েছে বলেও সূত্রের খবর৷

নয়া এই খবর প্রকাশ হতেই বিজেপি ছেড়ে শোভন-বৈশাখীর তৃণমূলে ফেরার সম্ভবনা আরও জটিলতা হল বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষক মহলের একাংশ৷ কেননা, এবারের ভাইফোঁটায় মুখ্যমন্ত্রীর কাছে থেকে ফোঁটা নেওয়ার পর থেকেই শোভন-বৈশাখীর তৃণমূলে ফেরা নিয়ে শুরু হয় জল্পনা৷

ইস্তফা প্রসঙ্গে সংবাদমাধ্যমে বৈশাখীদেবীর মন্তব্য, ‘‘আমি এর আগেও ইস্তফা দিতে চেয়েছিলাম৷ দ্বিতীয় বার ইস্তফা দেওয়ার পর শিক্ষামন্ত্রী উপযুক্ত ব্যবস্থা নেবেন বলে জানিয়েছিলেন৷ এটাই হয়তো শিক্ষামন্ত্রীর উপযুক্ত ব্যবস্থা৷’’ শিক্ষা দপ্তরের এই সিদ্ধান্ত খুব ভালো ভাবে নিচ্ছেন না বৈশাখীদেবী৷ জানিয়েছেন, যদি তাঁর পদত্যাগ গ্রহণ ও নতুন অধ্যক্ষ নিয়োগে তড়িঘড়ি অস্থায়ী পরিচালন সমিতি গঠন করা হয়, তার বিরুদ্ধে তিনি আইনি পথে ব্যবস্থা নিতে পারতেন৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *